পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়ালেন উষসী ও বন্ধুরা

কলকাতা: করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচতে এদেশে ২১ দিনের  লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। তবে মধ্যবিত্ত বাঙালি একসঙ্গে কয়েকদিনের বাজার করে সুরাহা করতে পারলেও, দরিদ্র ও পরিযায়ী শ্রমিকদের সে সংস্থান নেই। তাঁদের দিন আনা দিন খাওয়া অবস্থায় লকডাউন অনেকটা অভিশাপের মতোই নেমে এসেছে। কাজ বন্ধ, রোজগারও নেই। তাই যাদবপুর ৮বি বাস স্ট্যান্ড সংলগ্ন ৯৬ নম্বর ওয়ার্ডের কাঠগোলা অঞ্চলে এইসব শ্রমিকদের পাশে এসে দাঁড়ালেন এলাকার রাজদীপ, অর্ক, রঙ্গন, অর্ণবরা। তাঁদের সঙ্গে যোগ দিলেন অভিনেত্রী উষসী চক্রবর্তী। প্রতিদিন দুপুরে এলাকার দরিদ্র ও পরিযায়ী শ্রমিকদের রান্না করা খাবার সরবরাহ করছেন তাঁরা।

“এটা ওরাই শুরু করেছিল। এলাকার বিভিন্ন কাজের সঙ্গে ওরা যুক্ত থাকে। আমি জানতে পেরে ওদের এই উদ্যোগে সামিল হয়েছি,” রেডিওবাংলানেট-কে আজ জানালেন উষসী।

আরও পড়ুন: ফাগুন লেগেছে বনে বনে

রোজ কতজনের খাদ্যের সংস্থান করছেন তাঁরা? “শুরুটা হয়েছিল ৫০ জনকে দিয়ে। এখন প্রায় ১০০ জন রোজ আসেন। এদের অনেকেরই এখানে লন্ড্রি আছে। পরিবার নিয়ে তাঁরা অস্থায়ীভাবে এখানেই থাকেন। কারোর বাড়ি বিহার বা উড়িষ্যায়, সময়ে ফিরতে পারেননি। আবার অনেক রিকশাচালকও আছেন। রোজগার বন্ধ হয়ে যাওয়ায় আর্থিক সংকটের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন তাঁরা,” জানালেন উষসী। 

কিভাবে ব্যবস্থা করা হচ্ছে প্রতিদিনের খাবার? “চেনাজানা অনেকেই তাঁদের সাধ্যমতো চাল ডাল দিয়ে সাহায্য করেছেন। কেউ সয়াবিন দিয়েছেন, কেউ সবজি কিনে দিচ্ছেন। সকলে মিলে হচ্ছে কাজটা,” জানালেন উষসী।

লকডাউনের পরিস্থিতিতে সরকার ও প্রশাসনের তরফে ত্রাণের ব্যবস্থা করা হলেও বিভিন্ন ওয়ার্ডে অনেকেই নিজেদের উদ্যোগে এগিয়ে এসেছেন দরিদ্রদের সাহায্যার্থে।

রাস্তাই একমাত্র রাস্তা

Gepostet von Ushasie Chakraborty am Montag, 6. April 2020

 

Amazon Obhijaan



Like
Like Love Haha Wow Sad Angry

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *